ইসলামী সূত্র

  • features

    1. home

    2. article

    3. সূরা রা’দের ১৬ নং আয়াতের অনুবাদ ও সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা

    সূরা রা’দের ১৬ নং আয়াতের অনুবাদ ও সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা

    সূরা রা’দের ১৬ নং আয়াতের অনুবাদ ও সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা
    Rate this post

    ১৬ নং আয়াতটিতে বলা হয়েছে, “(হে নবী বলুন) কে আকাশ মন্ডলী ও পৃথিবীর প্রতিপালক? বলুন তিনি আল্লাহ। বলুন তবে কি তোমরা আল্লাহর পরিবর্তে অপরকে অভিভাবকরূপে গ্রহন করেছ যারা নিজেদের লাভ বা ক্ষতি সাধনে সক্ষম নয়? বলুন অন্ধ ও চক্ষুষ্মান কি সমান? অথবা অন্ধকার ও আলো কি এক? তবে কি তারা আল্লাহর এমন অংশী করেছে যারা আল্লাহর সৃষ্টির মত সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে, যে কারণে সৃষ্টি তাদের মধ্যে বিভ্রান্তি ঘটিয়েছে? বলুন, আল্লাহ সকল বস্তুর স্রষ্টা। তিনি এক ও পরাক্রমশালী।”

    পবিত্র কোরআনের অনেক জায়গায় অনেক বিষয় প্রশ্ন-উত্তর আকারে উপস্থাপিত হয়েছে। এটা কোরআনের একটি বৈশিষ্ট্য। যারা এক সৃষ্টিকর্তার উপর বিশ্বাস স্থাপনের পর তার সাথে অন্য কিছুকে অংশী স্থাপন করতো তাদের উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে, আল্লাহ যেমন এই বিশ্ব জগতের সব কিছু সৃষ্টি করেছেন তেমনী সব কিছুর নিয়ন্তা তিনিই। তার ইচ্ছায়ই সব পরিচালিত হয়। এমন নয় যে তিনি জগতের কোন কোন বিষয় পরিচালনার দায়িত্ব কাঠ বা মাটির তৈরী মূর্তির উপর ন্যস্ত করেছেন। এখানে অংশীবাদীদেরকে ধিক্কার জানিয়ে বলা হয়েছে, তোমরা কেন এমন কারো উপাসনা করছো যারা আসলে তোমাদের চেয়ে অক্ষম! এবং তারাও আল্লাহর বেধে দেয়া প্রকৃতির নিয়ম মেনে চলতে বাধ্য!
    এখানে বিশ্বাসী ও অবিশ্বাসীদেরকে অন্ধ ও চক্ষুষ্মান এবং আলো ও অন্ধকারের সাথে তুলনা করে বলা হয়েছে যারা সত্যকে দেখার পরও গ্রহন করতে পারে না অন্ধের সাথে তাদের পার্থক্য কোথায়?