ইসলামী সূত্র

  • features

    1. home

    2. article

    3. সূরা রা’দের ২২ নং আয়াতের অনুবাদ ও সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা

    সূরা রা’দের ২২ নং আয়াতের অনুবাদ ও সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা

    সূরা রা’দের ২২ নং আয়াতের অনুবাদ ও সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা
    Rate this post

    ২২ নং আয়াতে বলা হয়েছে-
    “যারা তাদের প্রতিপালকের সন্তুষ্টি লাভের জন্য ধৈর্য ধারণ করে, যথাযথভাবে নামাজ পড়ে, আমি তাদেরকে যে জীবনোপকরণ দিয়েছি তা থেকে গোপনে ও প্রকাশ্যে ব্যয় করে এবং যারা ভাল দ্বারা মন্দকে দূর করে, তাদের জন্য রয়েছে শুভ পরিণাম।”

    মোমেনদের আরেকটি বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, তারা প্রতিকূল পরিবেশে ধৈর্য্য ধারণ করতে পারে এবং অবিচলভাবে অর্পিত দায়িত্ব পালনে সচেষ্ট থাকে। আল্লাহ ধৈর্য্য ধারণকারীকে পছন্দ করেন। তবে ঐশি সাহায্য লাভের জন্য ধৈর্য্যের পাশাপাশি এবাদত বন্দেগী বিশেষ করে নামাজ পড়াটা জরুরী। আল্লাহ তা’লা পবিত্র কোরআনেও বলেছেন, তোমরা নামাজ ও ধৈর্য্যের মাধ্যমে সাহায্য প্রার্থনা কর।
    সমাজের দরিদ্র ও অসহায় মানুষের খোঁজ খবর নেওয়া মুমিনদের আরেকটি বৈশিষ্ট্য। যারা প্রকৃত মুমিন তারা সমাজের দরিদ্র মানুষকে সাহায্য করেন। তারা আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যই তা করেন, কাজেই তারা প্রকাশ্যে যেমন গরীবের পাশে দাঁড়ান তেমনি গোপনেও মানুষের সেবায় আত্মনিয়োগ করেন।
    এই আয়াত থেকে আমরা উপলব্ধি করতে পারি যে, মানুষের সেবা করা ছাড়া আল্লাহর সাথে সম্পর্ক করা যায় না। সমাজের দরিদ্র ও বঞ্চিত মানুষের প্রতি সচ্ছলদের দায়িত্ব রয়েছে। সে দিকে প্রতিটি মুসলমানের সচেতন থাকতে হবে।